“পড় তোমার প্রভুর নামে যিনি তোমাকে সৃষ্টি করেছেন”

এডুগার্ড উচ্চ বিদ্যালয়

Eduguard HIGH SCHOOLs

স্কুল কোডঃ # EIIN নম্বরঃ 554

বিচারকদের শাসনকাজে Details

বিচারকদের শাসনকাজে

Date : 03 - Feb - 2020



কুমার বিশ্বজিৎ। ছবি: প্রথম আলো

এ বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী। ৩০ জানুয়ারি ইউটিউব চ্যানেল গানছবি থেকে অবমুক্ত হলো ‘হে বন্ধু বঙ্গবন্ধু’ শিরোনামে শিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ–এর গাওয়া একটি গান। গানটির প্রসঙ্গ ধরেই কথা হয় কুমার বিশ্বজিতের সঙ্গে।

‘হে বন্ধু বঙ্গবন্ধু’ গানটি নিয়ে জানতে চাই।
যে মানুষটির জন্য আমরা একটি পতাকা, একটি স্বাধীন ভূখণ্ড পেয়েছি, তাঁর কাছে আমাদের অনেক ঋণ। সেই ঋণ শোধ করার সাধ্য আমাদের নেই। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর এই মাহেন্দ্রক্ষণে আমি একটা সুযোগ পেয়েছি। যেহেতু আমি গানের মানুষ, তাই গানের মাধ্যমেই একটুখানি ঋণ শোধ করতে চাই।

এই গান তৈরির গল্পটি বলুন।
প্রায় আট মাস আগে গানটি পাই। আমি আর কোনো গান নিয়ে এতটা খুঁতখঁতে ছিলাম বলে মনে হয় না। এই গানটির মাধ্যমে তিন প্রজন্মের মেলবন্ধন তৈরি হয়েছে। গানের গীতিকবি গাজী মাজহারুল আনোয়ার এক প্রজন্ম। আমি আর এই গানের সংগীতায়োজক মানাম আহমেদ, সমসাময়িক গানের সুরকার কিশোর দাশ নতুন প্রজন্মের। সুর করার পর মানাম ২২ দিন সময় নিয়েছে গানটির অর্কেস্ট্রেশন করতে। গানে এসরাজ বাজিয়েছেন ভারতের বিখ্যাত মিউজিশিয়ান আরশাদ খান। ঢাকায় এসেছিলেন গানবাংলার উইন্ড অব চেঞ্জের রেকর্ডিংয়ে। তাঁকে পেয়ে গেলাম। তিনি গানটি সম্পর্কে জেনে বাজালেন বিনা পারিশ্রমিকে। বাঁশি বাজিয়েছেন জালাল। গানটির মিউজিক ভিডিওতেও যুক্ত হয়েছে নতুন প্রজন্ম। তাদের অনুভব করতে বলেছি, বঙ্গবন্ধুর চশমা দিয়ে দেশটি দেখতে বলেছি। তাহলে তারা প্রকৃত বাংলাদেশটি দেখতে পাবে। বঙ্গবন্ধুর চশমা দিয়ে এই দেশটা দেখব।